রূপগঞ্জ প্রেসক্লাব এবং স্বনামধন্য কলামিস্ট মীর আব্দুল আলীমকে নিয়ে অপপ্রচার প্রসঙ্গে

0
300
রূপগঞ্জ প্রেসক্লাব নিয়ে কিছু ফেক আইডির মাধ্যমে প্রেসক্লাব সভাপতি মীর আব্দুল আলীম সম্পর্কে অপপ্রচার চালানো হচ্ছে যা সম্পূর্ণ মিথ্যা বনোয়াট এবং কাল্পনিক। মীর আব্দুল আলীম একজন প্রতিষ্ঠিত সাংবাদিক ও কলামিষ্ট। তিনি দেশ বিদেশের পত্র পত্রিকায় নিয়মিত কলাম লিখে থাকেন। তিনি রূপগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি।
রূপগঞ্জ সাহিত্য পরিষদের প্রধান উপদেষ্টা। আন্তর্জাতিক সংগঠন লায়ন্স ক্লাব ইন্টারন্যাশনাল-৩১৫/এ-১ এনভায়রনমেন্ট এন্ড প্ল্যান্টেশনের চেয়ারপারসন। লায়ন্স ক্লাব অব ঢাকা ভিক্টোরিয়া প্রেসিডেন্ট। দেশের স্বনামধন্য প্রতিষ্ঠান এখলাস গ্রুপ অব ইন্ডাস্ট্রির নিবার্হী পরিচালক।
তিনি রূপগঞ্জে দুটি সেবামূলক প্রতিষ্ঠান(হাসপাতাল) পরিচালনা করেন। একটির চেয়ারম্যান,অন্যটির উপদেষ্টা। সমাজসেবায় তিনি নিবেদিতপ্রাণ। তিনি অন্ধ কল্যাণ সমিতি, রক্তদাতা সমিতি, প্রতিবন্ধী সমিতিসহ নানা সমাজ উন্নয়ন সংগঠনের উপদেষ্টা, প্রধান উপদেষ্টা হিসেবে আছেন। বৃক্ষরোপণ,বাল্য বিবাহ,পরিবেশ দুষন বিরোধী আন্দোলন,নদী বাঁচাও আন্দোলন, তাঁর ভূমিকা অনন্য ও অসাধারণ।
তার এসব কাজের স্বীকৃতিস্বরূপ পেয়েেছন আন্তর্জাতিক শান্তি নিকেতন, মাদার তেরেসা, আমরা কুড়িসহ বহু পুরস্কার। তার ক্ষুরধার লেখনির জন্য রূপগঞ্জ সাহিত্য পরিষদ সন্মাননাসহ অসংখ্য সন্মাননা। গত বছরই তিনি ভারতের ব্যাঙালোরে অনুষ্ঠিত আন্তর্জাতিক সাহিত্য ঘরণা সাহিত্য সম্মলনে প্রধান অতিথির আসন অলংকৃত করেছেন। তিনি যে দেশের সম্পদতা আর বলার অপেক্ষা রাখেনা। তিনি সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে আপোষহীন। কাউকে ছাড় দিয়ে কিছু লিখেন না। তাই সন্ত্রাসীরা বরাবরই তার বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়ে থাকে। তারা নামে বেনামে ভুয়া ফেসবুক আইডি খুলে মীর আলীম সম্পর্কে অশালীন কথা বার্তা বলে যাচ্ছেন তা অত্যন্ত দুঃখজনক। তারা প্রতিহিংসা পরায়নের ভূমিকায় অবতীর্ণ হয়েছেন। তাদের যোগ্যতা নিয়ে আমার কোন বক্তব্য নেই। তবে এ ব্যাপারে আমরা ধিক্কার জানাই। কেউ তার (আলীম) সুনাম সহ্য করতে না পেরে কোনরূপ কলকাঠি নাড়াচাড়া করে থাকেন তারা ভুল করছেন। মীর আলীম একজন প্রতিভাবান লোক। আর এই প্রতিভা দান করেন স্বয়ং আল্লাহ তায়ালা। এই প্রতিভা সমুন্নত রাখার দায়িত্ব তিনিই নিবেন। আমি রূপগঞ্জ প্রেসক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক এবং বর্তমান প্রধান উপদেষ্টা, রূপগঞ্জ সাহিত্য পরিষদ সভাপতি হিসেবে মনে করি কারো কুৎসা রটনা করে আর একটি কুৎসার জন্ম দেয়া যায়। প্রতিহিংসার আগুন জ্বালানো যায়। মহান আল্লাহ আমাদের হেদায়েত করুন। আমিন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here