সাবেক স্বরাষ্টমন্ত্রী প্রয়াত আব্দুল মতিন চৌধূরীর ৯ম মৃত্যু বার্ষিকী আজ

0
200

ডেস্ক রিপোর্ট : আজ বুধবার (৪ আগস্ট) নারায়ণগঞ্জ-১ আসনের এক সময়ের দাপুটের সাংসদ ও সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মরহুম আব্দুল মতিন চৌধূরীর ৯ম মৃত্যু বার্ষিকী। তিনি রাজনৈতিক জীবনে বিএনপির স্থায়ী কমিটিতে সিনিয়র সহসভাপতিসহ গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্বে ছিলেন। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রনালয়ের পাশাপাশি পর্যায়ক্রমে ছিলেন সরকারের ডাক, তার , টেলিযোগ, বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়সহ গুরুত্বপূর্ণ পদে।

মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষ্যে জেলা বিএনপির নির্দেশনায় রূপগঞ্জের কাঞ্চন পৌর বিএনপির উদ্যেগে বিরাবো’র বাড়িতে স্বাস্থ্য বিধি মেনে স্বল্প পরিসরে দোয়া ও মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন জেলা বিএনপির আহবায়ক অ্যাডভোকেট তৈমুর আলম খন্দকার। অ্যাডভোকেট তৈমুর আলম খন্দকার বলেন, সরকারের নির্দেশনায় দেশে লকডাউন চলছে। যেহেতু (কোভিট) এই রোগটি দ্রুত সংক্রামিত হচ্ছে সেহেতু সকল কিছু বিবেচনা করে স্বাস্থ্যবিধি মেনে সীমিত পরিসরে উদযাপনের জন্য নেতাকর্মীদের বলে দেয়া হয়েছে।

জানা গেছে, আব্দুল মতিন চৌধুরী নারায়ণগঞ্জরে রূপগঞ্জে ১৯৭৯ সাল থেকে চারবার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। ১৯৯১ সালে সরকারের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ছিলেন তিনি। ২০০১ সালে বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারে প্রথমে বস্ত্রমন্ত্রীর দায়িত্ব পান। ১৯৯১ থেেক ২০০৮ সাল পর্যন্ত বিএনপির সর্বোচ্চ নীতি নির্ধারণী ফোরাম জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ছিলেন। এর আগে তিনি দলের সহ-সভাপতি ও যুগ্ম-মহাসচীবরে দায়িত্ব পালন করেন। তাঁর জন্ম ১৯৪০ সালে ১ সপ্টেম্বের রূপগঞ্জের কাঞ্চনে। তিনি ২০১২ ইং সনের ৪ আগষ্ট ৭৮ বছর বয়সে মারা যান।

কেন্দুয়া খালপাড় নিবাসী মোহাম্মদ সলিমউদ্দিন চৌধূরীর ৪ ছেলে ও ৪ মেয়ের মাঝে আব্দুল মতিন চৌধূরী ছিলেন সবার ছোট। ৪ ছেলের মাঝে ছিলেন, সওদাগর চৌধূরী, লাল মিয়া চৌধূরী, চাঁন মিয়া চৌধূরী এবং আব্দুল মতিন চৌধূরী। আর ৪ মেয়ে ছিলেন, পরীজান, ময়চান, আকিনা ও নূরজাহান। বর্তমানে তার রেখে যাওয়া সম্পদ ভোগ করছেন তার ভাই বোন ও তাদের সন্তানেরা। এক সময়ে পরিবারের দাপট থাকলেও তাদের কেহই এখন রাজনীতিতে সক্রিয় নয়। তবে আব্দুল মতির চৌধূরীর ভাতিজা মনিরুজ্জামান চৌধূরী রাজনীতিতে প্রবেশ করলেও শেষে তিনিও মারা যান। এখন এ বাড়িটি দেখাশুনা করছেন অপর ভাতিজা ফারুক চৌধূরী।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here