পরকিয়ার জেরে রূপগঞ্জে যুবকের আত্মহত্যা

0
447

ডেস্ক রিপোর্ট : নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে পরকিয়ার সংক্রান্ত বিষয়ে দুই পরিবারের দ্বন্ধের জেরে মেহেদী হাসান মুন্না (১৪) নামের এক যুবক আত্মহত্যা করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

ঘটনাটি ঘটেছে ১৫ মে শনিবার সন্ধ্যায় উপজেলার গোয়ালপাড়া এলাকায়। নিহত মুন্না একই এলাকার হারুন মিয়ার ছেলে।

আত্মহত্যাকারী মুন্নার মামা আইনজীবি মঞ্জুর হোসেন জানান, তার ভাগনে মেহেদী হাসান মুন্না ইউসুফগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয়ের ৯ম শ্রেণির ছাত্র থাকাবস্থায় মোবাইল ফোনে বাগবের গ্রামের প্রবাসী কবির মিয়ার স্ত্রী ৫ বছরের এক ছেলে সন্তানের জননী তানজিলার (২৪) সঙ্গে পরকিয়ার জড়িয়ে যায় এবং তারা পালিয়ে যায়। এ ঘটনা জানাজানি হলে প্রথমে ছেলের পক্ষ থেকে থানায় অপহরন মামলা দায়ের করা হয়। পরে মেয়ে পক্ষ থেকে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে পাল্টা মামলা হলে উভয় পরিবারের মাঝে তীব্র বিরোধ দেখা দেয়। সম্প্রতি ওই মামলায় পুলিশের নিকট আটক হলে মেহেদী হাসান মুন্না বিগত ১ মাস জেল হাজতের কিশোর সংশোধন সেন্টারে থাকে। পরে বিজ্ঞ আদালত মুন্নাকে তার মা মমতাজের হেফাজতে জামিন দেন। এর পর গত ২০ রমজান বাড়িতে ফিরে এলে সমাজের কারো সাথে কথা না বলে লজ্জায় ঘরে থেকেই সময় কাটতো মুন্না। কিন্তু ১৫ মে শনিবার সন্ধ্যায় কিছু বুঝে ওঠার আগেই তার নিজ ঘরে দরজা আটকে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে। পরে পরিবারের লোকজন দেখতে পেয়ে পুলিশকে জানালে ঘটনাস্থল থেকে মুন্নার মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য নারায়ণগঞ্জ মর্গে প্রেরণ করা হয়। এ ঘটনায় থানায় কোন অভিযোগ বা মামলা হয়নি।

ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে রূপগঞ্জ থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এইচ এম জসিম উদ্দীন বলেন, প্রাথমিকভাবে ঘটনাটি আত্মহত্যা বলেই মনে হচ্ছে। মেহেদী হাসান মুন্নার মৃত্যুর পেছনে কারো প্ররোচনা থাকলে বাদী পক্ষের অভিযোগ পেলে খতিয়ে দেখে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here