পুর্বাচলে চাঁদা না পেয়ে প্লটের কাজ বন্ধ করে মালামাল লুট

0
265

ডেস্ক রিপোর্ট : নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলার পুর্বাচল উপশহরে অতিরিক্ত মুল্যে ইট-বালুসহ নির্মাণ সামগ্রী নিতে রাজি না হওয়ায় স্থানীয় চাঁদাবাজরা প্লটের কাজ বন্ধ করে বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। শুধু তাই নয়, প্লটে থাকা ইট লুট করে প্লট মালিককে হত্যা, মারপিটসহ মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করবে বলে হুমকি দেয়। গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে পুর্বাচল উপশহরের ৮নং সেক্টর এলাকায় ঘটে এ ঘটনা। এ ঘটনায় প্লট মালিক জাকিউল ইসলাম বাদী হয়ে রূপগঞ্জ থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। জাকিউল ইসলাম ঢাকার উত্তর-পশ্চিম থানার ১৩ সেক্টর এলাকার মৃত নিজাম উদ্দিনের ছেলে।

প্লট মালিক জাকিউল ইসলাম অভিযোগ করে জানান, তিনি ক্রয় সুত্রে মালিক হয়ে পুর্বাচল উপশহরের ৮নং সেক্টরের ৩০৭ নম্বর রোডের ৩ কাঠা পরিমানের ২নং প্লটটি রাজউক কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে বুঝে পান। পরে রাজউক হতে নির্মান নকশার অনুমোদন পেয়ে ইট-বালু এনে নির্মান কাজ শুরু করেন।

দুপুর ১২টার দিকে রূপগঞ্জ উপজেলার সুলপিনা এলাকার নুর ইসলামের ছেলে চাঁদাবাজ মোহাম্মদ আলমের নেতৃত্বে ৮ থেকে ১০ জনের একদল সন্ত্রাসী কোন কিছু বোঝার আগেই নির্মাণ শ্রমিকদের মারধর করে প্লটের নির্মাণ কাজ বন্ধ করে দেয়। পরে বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্নসহ দেড় হাজার পিছ ইট লুটে নেয়।

খবর পেয়ে প্লট মালিক জাকিউল ইসলাম প্লটে এসে অভিযুক্ত মোহাম্মদ আলমকে এ ঘটনার কারন জিজ্ঞাসা করলে উল্টো হুমকি দেয়। এসময় চাঁদাবাজ আলম জানায়, তারা এলাকার মাস্তান। প্লট নির্মাণে ইট-বালু, সিমেন্ট, রডসহ সমস্ত মালামাল অতিরিক্ত মুল্যে দিয়ে আলমদের কাছ থেকে নিতে হবে। না নিলে প্লনে নির্মাণ কাজ করতে দেয়া হবেনা। কেউ নির্মাণ কাজ করার চেষ্টা করলে তাকে সাইজ করা হবে। প্লট মালিক জাকিউল ইসলাম প্রতিবাদ করতেই হত্যা, মারপিটসহ মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করবে বলে হুমকি দেয়।

প্লট মালিকরা অভিযোগ করে জানায়, আলম বাহিনীর কাছে পুর্বাচল উপশহরের প্লট মালিকরা জিম্মি হয়ে পড়েছে। কেউ প্লটের নির্মাণ কাজ করতে হলে আলমের সঙ্গে যোগাযোগ করে এবং তাকে রাজিখুশি করে নির্মাণ কাজ শুরু করতে হবে। তা না হলে করতে পারবেনা। আর নির্মাণ কাজ করলেও তা রাতের অন্ধকারে ভেঙ্গে ফেলে দেয় আলম বাহিনীর সন্ত্রাসীরা। এ জন্য অনেকেই আলমের সঙ্গে যোগাযোগ করে এবং রাজিখুশি করেই নির্মাণ কাজ করে যায়। আলম বাহিনী কাউকে না জানিয়ে জোরপুর্বক ভাবে অন্যর প্লট থেকে মাটি চুরি অন্যত্র বিক্রি করে দেয়ারও অভিযোগ রয়েছে। আলমসহ তার বাহিনীর সদস্যদের গ্রেফতারের দাবি জানান প্লট মালিকরা।

এ বিষয়ে অভিযুক্তদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তারা তাদের বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ অস্বীকার করেন।

এ বিষয়ে রূপগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এইচ এম জসিম উদ্দিন জানান, এ ঘটনার ব্যপারে জাকিউল ইসলাম নামের এক ভদ্রলোক রূপগঞ্জ থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। আমরা অভিযুক্ত আলমসহ ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহন করা হচ্ছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here