দাউদপুরে গরম পানি ঢেলে ঝলসে দিলো মুদি দোকানির শরীর

0
415

ডেস্ক রিপোর্ট ঃ নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে প্রতিপক্ষের লোকজন চায়ের কেটলিতে থাকা গরম পানি ঢেলে আব্দুল মালেক তালুকদার নামের এক মুদি দোকানদারের শরীর ঝলসে দিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

গতকাল বৃহস্পতিবার (৯ মার্চ) সকালে উপজেলার দাউদপুর ইউনিয়নের খৈশাইর এলাকায় ঘটে এ ঘটনা। আব্দুল মালেক তালুকদার খৈশাইর এলাকার মৃত ফজর আলী তালুকদারের ছেলে।

আব্দুল মালেক তালুকদারের স্ত্রী হনুফা বেগম জানান,তার স্বামী নিজ বাড়ির পাশেই মুদিসহ চায়ের দোকান দিয়ে সংসার চালিয়ে আসছেন। একই এলাকার শামিমা আক্তার, আব্দুস সাত্তার, কাজল ও আব্দুস সাত্তারের ছেলে ইমনের সঙ্গে আব্দুল মালেক তালুকদারের জমি সংক্রান্ত বিরোধ চলে আসছিলো দীর্ঘ দিন ধরে। বৃহস্পতিবার সকালে আব্দুল মালেক তালুকদারের দোকানের সামনে জোরপুর্বক পাঁকা দেয়াল নির্মাণ করতে যায় কাজলসহ প্রতিপক্ষের লোকজন। পরে ৪ ফুট উঁচু পাঁকা দেয়াল নির্মাণ করে তারকাটা গেড়ে দেয়া হয়। এসময় তার স্বামী আব্দুল মালেক তালুকদার পাঁকা দেয়াল নির্মাণে বাঁধা দেন। এক পর্যায়ে রামদা, চাপাতিসহ দেশীয় অস্ত্রেশস্ত্রে সজ্জিত হয়ে প্রতিপক্ষের লোকজন মুদি দোকানে হামলা চালিয়ে ভাংচুর করে। এছাড়া মুদি দোকানে থাকা নগদ ৫৫ হাজার টাকা লুটে নেয়। এসময় প্রতিবাদ করতে গেলে হামলাকারীরা দোকানে থাকা চায়ের কেটলিতে থাকা গরম পানি আব্দুল মালেক তালুকদারের পিঠে ও কোমড়ে ঢেলে দিয়ে ঝলসে দেয়। পরে আশ-পাশের লোকজন তাকে উদ্ধার করে রূপগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। শুধু তাই নয়, এ ব্যপারে কোন প্রকার মামলা-মোকদ্দমা করলে পরিবারের সদস্যদের হত্যা করা হবে বলেও হুমকি দেয়া হয়। ঝলসে যাওয়া আব্দুল মালেক তালুকদারের স্ত্রী হনুফা বেগমসহ পরিবারের সদস্যরা প্রশাসনের কাছে সুষ্ঠু বিচার দাবি করেছেন।

এ বিষয়ে রূপগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মহসিনুল কাদির বলেন, এ ধরনের ঘটনার অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here