কাঞ্চনে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে কলি বাহিনীর স্বশস্ত্র হামলা, গুলি বর্ষণ, আহত-১

0
630

নিউজ ডেস্কঃ নারায়ণগঞ্জে রূপগঞ্জে রাজনৈতিক বিরোধে জের ধরে তারিকুল ইসলাম মোগল নামে এক ব্যবসায়ীর একটি আবাসন প্রকল্পের সাইট অফিসে গোলাম রসূল কলি বাহিনীর নেতৃত্বে হামলা ভাংচুর, গুলি বর্ষণ ও ককটেল বিস্ফোরণ চালানো হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

এসময় সন্ত্রাসীরা ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের দায়িত্বে থাকা কেয়ারটেকারকে কুপিয়ে গুরুতর জখম করেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

রবিবার (১১ জানুয়ারি) রাতে উপজেলার কাঞ্চন পৌরসভার মায়ার বাড়ি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। সোমবার বিকালে এ ঘটনায় আবাসন প্রকল্পের ইনচার্জ কবির হোসেন বাদী হয়ে রূপগঞ্জ থানায় একটি অভিযোগ দেন।

আবাসন প্রকল্পের সাইট অফিসের ইনাচার্জ কবির হোসেন বলেন, তিনি উপজেলার কাঞ্চন মায়ারবাড়ি এলাকায় তরিকুল ইসলাম মোগলের একটি আবাসন প্রকল্পের সাইড অফিসের ইনচার্জ হিসেবে কর্মরত রয়েছেন।

রবিবার রাতে ইনাচার্জ কবির হোসেন ও কেয়ারটেকার শাহীন মিলে ব্যবসায়িক বিষয় নিয়ে আলাপ আলোচনা করছিল। আলাপ চলাকালীন সময় রাজনৈক বিরোধের জের ধরে একই এলাকার গোলাম রসূল কলি, রবিউল ইসলাম, মতিউর রহমান, ইসলাম উদ্দিন, নবীউল ইসলাম, সাইফুল ইসলাম, সিরাজ মিয়া, মোহন, খোকা, আইবুর রহমান, টুটুল শাহজাহান, মঞ্জুর আলম, আব্দুল জলিল, আনোয়ার, নূর হোসেন, আলমগীর, নবী উল্লাহ, হিমেল, শাখাওয়াত, আলী হোসেন, আলামিন, মোমেন প্রধান, মামুন মিয়া, তোফাজ্জল হোসেন, কাকঁন মিয়াসহ কয়েকজন দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র ও পিস্তলসহ ল্যান্ড প্রপার্টিজ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হামলা ভাংচুর চালাতে থাকে।

এসময় শাহীন মিয়া ভাংচুরে বাঁধা প্রদান করলে গোলাম রসূল কলি ও তার সন্ত্রাসী বাহিনীর সদস্যরা তাকে এলোপাথারিভাবে কুপিয়ে গুরুতর জখম করে। এসময় তারা শাহীন মিয়াকে লক্ষ্য করে দুই রাউন্ড গুলি ছুড়লে তাদের লক্ষ্য ভ্রষ্ট হয়। পরে সন্ত্রাসীরা অফিসের টেলিভিশন, ল্যাপটপসহ আসবাবপত্র ভাংচুর ব্যাপক ক্ষয়-ক্ষতি করে হুমকি ধামকি দিয়ে চলে যায়। পরে স্থানীয়রা এগিয়ে এসে শাহীন মিয়াকে আহত অবস্থায় রূপগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।

এ ব্যাপারে রূপগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহমুদুল হাসান বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত মোতাবেক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।#

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here