মঙ্গলবার ২৮ মে ২০২৪ ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মানুষের অধিকার আদায়ে নেতৃত্ব দিয়েছে আওয়ামী লীগ
প্রকাশ: শুক্রবার, ২৩ জুন ২০২৩, ১১:০৮ পূর্বাহ্ণ

আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শেখ হাসিনা বলেছেন, জন্মলগ্ন থেকে মানুষের অধিকার আদায়ের সংগ্রামে নেতৃত্ব দিয়েছে আওয়ামী লীগ, এনেছে স্বাধীনতার বিজয়। ৭৫’র পর স্বাধীনতার চেতনা ধুলিস্যাৎ করেছে অবৈধ সামরিক সরকার, আওয়ামী লীগ তা ফিরিয়ে এনেছে। আওয়ামী লীগ দেশকে বিশ্বে মর্যাদার আসনে আসীন করেছে। পূরণ করেছে মানুষের অধিকার।

শুক্রবার (২৩ জুন) সকালে দলের ৭৪তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে রাজধানীর ধানমন্ডিতে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন এবং বেলুন ও পায়রা উড়িয়ে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর কর্মসূচির উদ্বোধন করে তিনি এসব কথা বলেন।

আওয়ামী লীগ সভাপতি বলেন, অবৈধভাবে যারা সংবিধান লঙ্ঘন করে ক্ষমতায় এসেছিল, তারা এদেশের স্বাধীনতার চেতনাকে ধুলিস্যাৎ করেছিল। আওয়ামী লীগ যখন সরকারে এসেছে, তখনই দেশের মানুষের ভাগ্যে পরিবর্তন এসেছে। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকলে মানুষের ভাগ্যের উন্নয়ন হয়, আজকে এটা প্রমাণিত সত্য। ২০০৮ এর নির্বাচনে জনগণ ভোট দিয়েছিল, আমরা সরকার গঠন করেছি। ২০১৪ সালের নির্বাচনে বাংলাদেশের জনগণ নৌকায় ভোট দিয়ে আবারও আমাদের ক্ষমতায় আনে। ২০১৮ নির্বাচনে জনগণ নৌকায় ভোট দিয়ে আমাদের পুনরায় জয়যুক্ত করে।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ ১৯৪৯ সালে প্রতিষ্ঠা লাভ করে, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব তখন কারাগারে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চতুর্থ শ্রেণি কর্মচারীদের দাবি সমর্থন করতে গিয়ে তিনি গ্রেফতার হয়েছিলেন। বন্দি অবস্থায় তাকে দলের এক নম্বর যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক করা হয়।

শেখ হাসিনা বলেন, আওয়ামী লীগ এদেশের মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য সংগ্রাম করে গেছে। জাতির পিতার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ দেশ স্বাধীন করেছে। বিজয় অর্জন করছে মুক্তিযুদ্ধে।

তিনি একুশে আগস্ট গ্রেনেড হামলায় আইভি রহমানসহ যারা জীবন দিয়েছে, ২০০১ সালে বিএনপি-জামায়াতের সন্ত্রাসীদের হাতে যারা হতাহত হয়েছে, বিএনপি-জামাতের অগ্নিসন্ত্রাসে যারা শহীদ হয়েছে তাদের সবার প্রতি শ্রদ্ধা জানান। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মওলানা ভাসানীর প্রতিও তিনি শ্রদ্ধা জানান।

শেখ হাসিনা বলেন, নিজস্ব অর্থায়নে পদ্মা সেতু নির্মাণের মধ্য দিয়ে আজকে সারা বিশ্বের উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে বাংলাদেশ পরিচিতি লাভ করেছে। বাংলাদেশ আজকের উন্নয়নশীল মর্যাদা পেয়েছে। আওয়ামী লীগ সরকারে থাকলে দেশ উন্নয়নের পথে থাকবে। অবৈধভাবে ক্ষমতা দখলকারী, সন্ত্রাসী দল বিএনপি-জামায়াতসহ যারা স্বাধীনতার চেতনায় বিশ্বাস করে না, তারা দেশকে ধ্বংস করতে চায়।

আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ আপনাদের খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণতা দিয়েছে। ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ পৌঁছে গেছে, শিক্ষার আলো জ্বলেছে প্রতিটি ঘরে, তৃণমূল পর্যায় পর্যন্ত স্বাস্থ্যসেবা পৌঁছে গেছে, মানুষের যাতায়াত সুবিধা দেওয়া হয়েছে। আর্থসামাজিক উন্নয়নের পথে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে। ডিজিটাল বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠা করেছি। গ্রাম পর্যায় পর্যন্ত ওয়াইফাই কানেকশন দিয়েছি। বাংলাদেশের মানুষ এখন প্রযুক্তি ব্যবহার করছে, হাতে হাতে মোবাইল। আওয়ামী লীগ সরকারে থাকলে দেশ আরও উন্নত-সমৃদ্ধ হবে।

আওয়ামী লীগের সভাপতি আরও বলেন, ২০৪১ সালের মধ্যে স্মার্ট বাংলাদেশ, স্মার্ট জনগোষ্ঠী, স্মার্ট অর্থনীতি গড়ে তোলা হবে। আমার দেশ এগিয়ে যাবে। কৃষি, বিজ্ঞান, স্বাস্থ্যসহ সব ক্ষেত্রে বাংলাদেশ আজ এগিয়ে গেছে। বিশ্বে বাংলাদেশ মর্যাদার আসনে আসীন হয়েছে। যেখানে দুর্ভিক্ষের দেশ হিসেবে আমাদের মানুষের করুণার চোখে দেখা হতো, আজকে বাংলাদেশি প্রবাসীদের বিদেশে সম্মানের চোখে দেখা হয়। এ সম্মান এনে দিয়েছে আওয়ামী লীগ।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ মানুষের কল্যাণের কথা চিন্তা করে। জাতির পিতার আদর্শ ধারণ করে বাংলাদেশ এগিয়ে যাবে। বাংলাদেশ সারা বিশ্বে যে মর্যাদার আসন অর্জন করেছে, সে অর্জন ধরে রেখেই আরও উন্নত-সমৃদ্ধ হবে, সেটাই আমার প্রতিজ্ঞা।

 







সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত

এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ