বুধবার ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ৮ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

ভোটগ্রহণ শেষ, চলছে গণনা
প্রকাশ: বৃহস্পতিবার, ২৫ মে ২০২৩, ০৫:০০ অপরাহ্ণ

গাজীপুরে সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোটগ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে, চলছে গণনা। বৃহস্পতিবার (২৫ মে) সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত বিরতিহীনভাবে ভোটগ্রহণ চলে। কিছু কিছু কেন্দ্রে ইভিএমে ধীরগতি ও জটিলতা ছিল বলে অভিযোগ করেছেন ভোটাররা। তবে কোথাও কোনো অপ্রীতিকর ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি।

সকালের দিকে শহরের কয়েকটি কেন্দ্রে ভোটারদের উপচে পড়া ভিড় থাকলেও দুপুরের দিকে ভোটারদের উপস্থিতি কম ছিল। ভোটকেন্দ্রগুলোতে পুরুষ ভোটারের থেকে নারী ভোটারের উপস্থিতি বেশি ছিল।

গাজীপুর জেলা শহরের প্রাণকেন্দ্রে অবস্থিত গাজীপুর সরকারি মহিলা কলেজ কেন্দ্রে ভোটারদের উপস্থিতি ছিল অনেক কম। বিকেল সাড়ে তিনটা পর্যন্ত ওই কেন্দ্রে ৩১৪৫ জন ভোটারের মধ্যে আটশো জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন। এ সময় ওই কেন্দ্রে মাত্র ১৫-২০ জন ভোটারের উপস্থিতি দেখতে পাওয়া যায়।

ওই কেন্দ্রের প্রিসাইডিং অফিসার কাজী সাইয়েদুর রহমান জানান, শহরের মেইন পয়েন্টের কেন্দ্রটিতে কেন ভোটার উপস্থিতি কম তা ঠিক বোঝা যাচ্ছে না।

এদিকে ইভিএমে ধীরগতি ও লম্বা লাইনের দুর্ভোগে পড়েন ভোটাররা। বেলা ১১টা ২০মিনিটের দিকে বাসন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে গিয়ে কথা হয় ভোটার নুরুল ইসলামের সঙ্গে।

তিনি বলেন, প্রায় ঘণ্টা খানেক আগে লাইনে ২০-২২ জনের পেছনে দাঁড়িয়েছিলাম। ভোট নিতে দীর্ঘ সময় লাগছে।

ওই কেন্দ্রে ভোট দিয়েছেন আরেক ভোটার বাসন গ্রামের নুরুল ইসলাম। তিনি বলেন, ভোট দেওয়ার সময় তিনটি প্রতীক আসে, মেয়র প্রার্থীকে ইচ্ছামতো ভোট দেওয়ার পর সাধারণ কাউন্সিলর ও সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে ভোট দিতে পারেননি।

এ বিষয়ে কেন্দ্রের দায়িত্বে থাকা পোলিং কর্মকর্তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে তিনি প্রিসাইংডিং কর্মকর্তার সঙ্গে যোগাযোগের পরামর্শ দেন।

এছাড়া শহরের শহীদ স্মৃতি উচ্চ বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রের ৯টি বুথের মধ্যে ৩টিতে সকালে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) জটিলতা দেখা দেয়।

ওই কেন্দ্রের প্রিসাইডিং কর্মকর্তা মিজানুর রহমান বলেন, কয়েক মিনিটের মধ্যে টেকনিশিয়ানরা সমস্যার সমাধান করেছেন। যদিও পরে অনেক ভোটারেরই আঙুলের ছাপ না মেলায় ভোট গ্রহণে ধীরগতি দেখা যায়।







সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত

এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ