রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ১২ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

ভারত থেকে তিনদিনে এসেছে ২ ট্রাক পেঁয়াজ, কেজিতে বেড়েছে ২০ টাকা
প্রকাশ: মঙ্গলবার, ২২ আগস্ট ২০২৩, ০৭:২৫ অপরাহ্ণ

ভারত সরকার পেঁয়াজ রপ্তানিতে ৪০ শতাংশ শুল্ক আরোপের ঘোষণার পরপরই বেনাপোলসহ শার্শা, নাভারন, বাগআঁচড়ায় খুচরা ও পাইকারি বাজারে বেড়ে গেছে দাম। কমেছে পেঁয়াজ আমদানি। গত তিনদিনে বেনাপোল বন্দর দিয়ে মাত্র দুই ট্রাক পেঁয়াজ আমদানি হয়েছে।

ফলে মঙ্গলবার (২২ আগস্ট) সকাল থেকে প্রতি কেজিতে পেঁয়াজের দাম বেড়েছে ২০ থেকে ৩০ টাকা। এখন প্রতি কেজি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৭০ থেকে ৮০ টাকায়। বাড়তি দামে দিশেহারা ক্রেতারা। দাম আরও বাড়বে বলে জানান খুচরা ব্যবসায়ীরা। বাজার নিয়ন্ত্রণে দ্রুত পদক্ষেপ চেয়েছেন তারা।

ব্যবসায়ীরা বলছেন, শুল্ক বাড়ানোর ঘোষণার পরই এর প্রভাব পড়েছে আমদানির বাজারে। দেশে বছরে পেঁয়াজের চাহিদা প্রায় ২৬ লাখ টন। এর মধ্য ভারত থেকে আমদানি হয় সাত থেকে আট লাখ টন। এ অবস্থায় বাজার নিয়ন্ত্রণে দ্রুত সরকারি পদক্ষেপ চেয়েছেন ক্রেতারা।

বেনাপোল বাজারের পাইকারি ব্যবসায়ী মুজিবর রহমান বলেন, আমদানি নেই। চাহিদা বেশি। তাই দাম বাড়ছে। বেশি দামেও পেঁয়াজ মিলছে না।

তিনি বলেন, ভারতে পেঁয়াজের ওপর ৪০ শতাংশ শুল্ক আরোপ করায় অনেকে পেঁয়াজ আমদানিতে উৎসাহ দেখাচ্ছে না। এ কারণে বাজার ক্রমেই অস্থিতিশীল হয়ে উঠছে। পর্যাপ্ত পেঁয়াজ আমদানি করা না হলে দাম কমার কোনো সম্ভাবনা নেই।

বেনাপোল বাজারে পেঁয়াজ কিনতে এসেছেন মনির হোসেন। তিনি বলেন, তিনদিন থেকেই পেঁয়াজের দাম বেড়েছে কেজিতে ২০ থেকে ৩০ টাকা। গত সপ্তাহে ৪০-৪৫ টাকা কেজি কিনেছি। আজ বাজারে এসে দেখি ৭০ থেকে ৮০ টাকা।

আরেক ক্রেতা ওসমান গণি বলেন, প্রতিদিনই কাঁচাবাজারে বিভিন্ন পণ্যের দাম বেড়েই চলেছে। কিন্তু পেঁয়াজ কেনার মতো অবস্থা নেই। তিনদিনে দাম বেড়েছে কেজিতে ২০ থেকে ৩০ টাকা। কী করবো, এখন অল্প করে কিনছি। দাম একটু কমলে বেশি পরিমাণে কিনবো।

বেনাপোলের খুচরা পেঁয়াজ বিক্রেতা সালাউদ্দিন বলেন, দুই সপ্তাহ আগে পাইকারি পেঁয়াজ কিনেছি ৪০-৪২ টাকা কেজি দরে। তখন বিক্রি করেছি ৪৫-৫০ টাকা কেজি। তিনদিনের ব্যবধানে পাইকারিতে দাম বেড়ে হয়েছে ৬৫ থেকে ৭৫ টাকা। এখন বিক্রি করছি ৭০-৮০ টাকা কেজি দরে।

বেনাপোল স্থলবন্দর পরিচালক আব্দুল জলিল বলেন, বেনাপোল স্থলবন্দর দিয়ে আগে প্রতিদিন ভারত থেকে ১৫-২০ ট্রাক পেঁয়াজ আমদানি হলেও গত তিনদিনে মাত্র দুই ট্রাক পেঁয়াজ আমদানি হয়েছে। ভারতে বাড়তি শুল্ক দিয়েই এ পেঁয়াজ আমদানি করেন আমদানিকারকরা।

ভারতের স্থানীয় বাজারে দাম নিয়ন্ত্রণে আনতে পেঁয়াজ রপ্তানিতে ৪০ শতাংশ শুল্ক আরোপ করেছে দেশটির সরকার। শনিবার (১৯ আগস্ট) দেশটির অর্থ মন্ত্রণালয় এক প্রজ্ঞাপনে শুল্ক আরোপের সিদ্ধান্ত জানায়। এ সিদ্ধান্ত ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত কার্যকর থাকবে।







সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত

এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ