বুধবার ১৯ জুন ২০২৪ ৫ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ভারতের মমতা ব্যানার্জী মুখ্যমন্ত্রীদের মধ্যে সবচেয়ে দরিদ্র
প্রকাশ: বৃহস্পতিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৩, ১২:৫৭ অপরাহ্ণ

ভারতের ২৮টি রাজ্য ও ২টি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের মুখ্যমন্ত্রীদের মধ্যে সবচেয়ে কম সম্পদের মালিক হলেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী। অ্যাসোসিয়েশন ফর ডেমোক্রেটিক রিফর্মস (এডিআর) রিপোর্ট থেকে জানা যায় এ তথ্য।

এডিআরের রিপোর্ট বলছে, ভারতের ৩০ জন মুখ্যমন্ত্রীর মধ্যে ২৯ জনই কোটিপতি। তবে কেবল তুলনামূলকভাবে গরিব মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী। তার সম্পতির পরিমাণ মাত্র ১৫ লাখ রুপি।

এডিআরের রিপোর্ট অনুযায়ী, দেশটির সবচেয়ে বিত্তশালী মুখ্যমন্ত্রী হলেন অন্ধপ্রদেশের জগনমোহন রেড্ডি। তার মোট সম্পত্তির পরিমাণ প্রায় ৫১০ কোটি রুপি।

দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে অরুণাচল প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী পেমা খান্ডু। তবে তিনি অন্ধপ্রদেশের জগনমোহন রেড্ডির থেকে বেশ খানিকটা পিছিয়ে। তার সম্পত্তির পরিমাণ ১৬৩ কোটি রুপি। এরপর তৃতীয় স্থানে আছে উড়িষ্যার মুখ্যমন্ত্রী নবীন পট্টনায়। তার সম্পত্তির পরিমাণ ৬৩ কোটি রুপি। তবে বিহারের ও দিল্লীর মুখ্যমন্ত্রীর সম্পত্তির পরিমাণ সমান। নিতিশ কুমার ও অরবিন্দ কেজরিওয়ালের সম্পত্তির পরিমাণ ৩ কোটি রুপি করে।

হরিয়ানার মুখ্যমন্ত্রীর মনোহরলাল খট্টরের স্থাবর-অস্থাবর সম্পত্তির মোট অংক প্রায় এক কোটি রুপি। কেরালার মুখ্যমন্ত্রী পিনারই বিজয়নের সম্পত্তির পরিমাণ এক কোটি রুপির সামান্য কিছু বেশি। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ভারতের ৩০ জন মুখ্যমন্ত্রীর মধ্যে ৯৭ শতাংশই কোটিপতি। মুখ্যমন্ত্রীদের গড় সম্পত্তির পরিমাণ ৩৩ দশমিক ৯৬ কোটি। তাছাড়া মুখ্যমন্ত্রীদের মধ্যে ৪৩ শতাংশের বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলা রয়েছে।

বরাবরই পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী জানিয়েছেন, দীর্ঘদিন জনপ্রতিনিধি থাকলেও তিনি কোনো বেতন নেন না। পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী পদের বেতন তিনি নেন না। দীর্ঘদিন লোকসভার সংসদ সদস্য ছিলেন তার পেনশনেও তিনি গ্ৰহণ করেন না। তার রোজগারের উৎস বই লেখা, গান লেখা, ছবি আঁকা। শিল্পকর্ম থেকে পাওয়া অর্থ তার একমাত্র সম্পত্তি।







সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত

এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ