মঙ্গলবার ২১ মে ২০২৪ ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বিমানবন্দরে স্বর্ণ চুরি: ৮ জন রিমান্ডে
প্রকাশ: বুধবার, ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ০৫:২৩ অপরাহ্ণ

রাজধানীর হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের কাস্টমসগুদাম থেকে ৫৫ কেজি সোনা চুরির ঘটনায় গ্রেফতার সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তা ও সিপাহীসহ আট জনের পাঁচ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

বুধবার (১২ সেপ্টেম্বর) ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মো. মেহেদী হাসানের আদালত এ রিমান্ড মঞ্জুর করেন। আদালতের বিমানবন্দর থানার সাধারণ নিবন্ধন কর্মকর্তা উপ-পরিদর্শক মোজাফফর আলী এ তথ্য জানিয়েছেন।

আসামিরা হলেন– সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তা মো. শহিদুল ইসলাম (৩৬), সাইদুল ইসলাম সাহেদ (৩৩), আকরাম শেখ (৩৬) ও মো. মাসুম রানা (৩৩) এবং সিপাহী মো. মোজাম্মেল হক (৩৫), মো. নিয়ামত হাওলাদার (২৭), মো. রেজাউল করিম (৩৬), ও মো. আফজাল হোসেন (২৯)।

এর আগে কাস্টমসের চার সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তা এবং গুদামের নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা চার সিপাহিকে গ্রেফতার দেখায় ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ। তাদের কাছ থেকে প্রায় ৯৪ ভরি সোনা উদ্ধার করা হয়েছে। গ্রেফতারের পর তাদের ১০ দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে সোপর্দ করা হয়। আদালত পাঁচ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

এ প্রসঙ্গে ডিবি মহানগর প্রধান মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ বলেন, ‘বিমানবন্দরে কাস্টমসের গুদাম থেকে সোনা চুরির ঘটনায় বিমানবন্দর থানায় দায়ের হওয়া মামলা তদন্ত করছে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের উত্তরা বিভাগ। তদন্তের স্বার্থে আমরা আট জনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য এনেছিলাম। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে তাদের গ্রেফতার দেখানো হয়েছে।’

এর আগে শনিবার (২ সেপ্টেম্বর) সকাল ৯টার দিকে ঢাকা শুল্ক বিভাগের সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তা ও গুদামের দায়িত্বে থাকা কর্মকর্তা মাসুদ রানা বিমানবন্দরের লস্ট অ্যান্ড ফাউন্ড শাখার কাছে শুল্ক বিভাগের গুদামের মূল্যবান পণ্যসামগ্রী রাখার একটি স্টিলের আলমারির লক ভাঙা বলে জানান। তবে বিষয়টি জানাজানি হয় পরদিন রবিবার। বিমানবন্দরের কাস্টম হাউজের নিজস্ব গুদামে দিনভর গণনা শেষে ৫৫ কেজি সোনা চুরি বা বেহাত হওয়ার সত্যতা নিশ্চিত হয় সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ। এ ঘটনায় মামলা হয়েছে অজ্ঞাতদের আসামি করে। পুরো ঘটনা তদন্তের জন্য যুগ্ম-কমিশনার মিনহাজ উদ্দীনের নেতৃত্বে পাঁচ সদস্যের একটি টিম গঠন করেছে কাস্টমস হাউজ।

 







সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত

এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ