শনিবার ১৮ মে ২০২৪ ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বকেয়া বিল মাসে ১০ কোটি করে পরিশোধে রাজি বিমান
প্রকাশ: রবিবার, ২১ মে ২০২৩, ১২:১২ অপরাহ্ণ

অবশেষে প্রতি মাসে ১০ থেকে ১৫ কোটি টাকা করে পদ্মা অয়েল কোম্পানির বকেয়া অর্থ পরিশোধে সম্মত হয়েছে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স। এতে বিমানের কাছে বকেয়া ২ হাজার ১০৮ কোটি টাকা আদায়ে কোম্পানিটির ১৪০ থেকে ২১০ মাস সময় লাগবে।

জ্বালানি বিভাগের একটি বৈঠকে জানানো হয়, সম্প্রতি অর্থ বিভাগ, বেসরকারি বিমান পরিবহন এবং পর্যটন মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে জ্বালানি বিভাগ এবং পেট্রোলিয়াম করপোরেশনের বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। আগামী জুন মাসে প্রথম কিস্তি পাওয়া যাবে বলে আশা করছেন জ্বালানি বিভাগের এক কর্মকর্তা।

তিনি বলেন, বিমান যদি মাসে ১০ কোটি টাকা করে পরিশোধ করে তাহলে এই অর্থ পরিশোধ করতে অন্তত সাড়ে ১৭ বছর সময় প্রয়োজন হবে। আর যদি মাসে ১৫ কোটি টাকা করে পরিশোধ করে তাহলে সাড়ে ১১ বছরের বেশি সময় লাগবে। একেবারেই না পাওয়ার চাইতে আস্তে আস্তে পাওয়াটা ভালো বলে মনে করেন তিনি।

জ্বালানি বিভাগ সূত্র বলছে, ২০১১ থেকে ২০১৯ সাল পর্যন্ত সময়ে বিমানের কাছে সুদে আসলে ২ হাজার ১০৮ কোটি টাকা পাওনা হয় পদ্মা অয়েল কোম্পানি। বাকিতে নেওয়া তেলের টাকা চাইলে বিমান তা দিতে টালবাহানা করে। এরপর এই টাকা তাদের পক্ষে দেওয়া সম্ভব না জানিয়ে মওকুফ করে দিতে বলে।

বিমানে জেট ফুয়েল দেয় রাষ্ট্রীয় তেল বিপণন কোম্পানি পদ্মা অয়েল। তারা বিষয়টি বিপিসি এবং জ্বালানি বিভাগকে অবহিত করে। জ্বালানি বিভাগ থেকে বিষয়টি বেসামরিক বিমান পরিবহন মন্ত্রণালয়কে জানালে বিমান ২০ কোটি টাকা পরিশোধ করে। পরে আবার দেওয়া বন্ধ করে দেয়।

টাকা আদায়ের লক্ষ্যে সর্বশেষ গত ২৮ নভেম্বর জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিভাগ থেকে বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ে পত্র পাঠানো হয়। সবশেষ গত ১৬ ফেব্রুয়ারি পদ্মা অয়েল কোম্পানি বকেয়া পাওনা আদায়ের বিষয়ে বিমান বাংলাদেশকে চিঠি দেয়।

জ্বালানি বিভাগ সূত্র জানায়, গত ৪ এপ্রিল বাংলাদেশ বিমানের বকেয়া ও চলমান পাওনা আদায়ের বিষয়ে অর্থ বিভাগ ও সংশ্লিষ্ট স্টেকহোল্ডারদের সঙ্গে এ বিভাগের সচিব মহোদয়ের সভাপতিত্বে গত তারিখে একটি আন্তঃমন্ত্রণালয় সভা অনুষ্ঠিত হয়। ওই সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী পরবর্তী প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য গত ১৭ এপ্রিল এ বিভাগ হতে বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়কে অনুরোধ করা হয়।

পদ্মা অয়েলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. মাসুদুর রহমান জানান, আগামী মাস হতে ১০-১৫ কোটি টাকা করে বকেয়া পরিশোধ করা শুরু করবে বিমান। তিনি জানান, এ বিষয়ে সার্বক্ষণিকভাবে বিমানের সঙ্গে যোগাযোগ রাখতে বলা হয়েছে।

 







সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত

এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ