মঙ্গলবার ২৫ জুন ২০২৪ ১১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

দূর্নীতি কালোবাজারী এখন ওপেন সিক্রিট, এদের লাগাম টেনে ধরতে হবে
প্রকাশ: বৃহস্পতিবার, ২৬ অক্টোবর ২০২৩, ০৭:৩০ অপরাহ্ণ

জসিম রহমান, হাজীগঞ্জ প্রতিনিধি: ইসলামিক ফ্রন্ট বাংলাদেশ এর কেন্দ্রীয় চেয়ারম্যান জাতীয় নেতা পীরে তরিকত আল্লামা ছৈয়দ বাহাদুর শাহ মোজাদ্দেদী বলেছেন- রাজনীতিতে ক্রমাগত উত্তপ্ততা বৃদ্ধি পাচ্ছে।পারস্পরিক কাদা ছোড়াছুড়িতে ক্রমাগত আতংকগ্রস্ত হয়ে পড়ছে সাধারণ জনগন। রাজপথ দখলের নামে হানাহানি- মারামারির মত অসম রাজনৈতিক প্রতিযোগিতায় ক্রমশঃ লোপ পাচ্ছে রাজনৈতিক সুস্থতা।

রাজনৈতিক দলসমূহ কেবলই ক্ষমতায় আরোহনকে একমাত্র লক্ষ্য হিসেবে বিবেচনায় নেয়ার কারণে বরাবরই উপেক্ষিত হচ্ছে জনস্বার্থ। নির্বাচন পূর্বমূহুর্তে পরস্পর দোষারোপের রাজনীতির কারণে জনস্বার্থ ব্যাহত হবে বলে মন্তব্য করে তিনি আরও বলেন- কোন অরাজনৈতিক ও অনির্বাচিত সরকারের নিকট রাষ্ট্র এক মূহুর্তের জন্যও নিরাপদ নয়। একমাত্র প্রভাবমুক্ত স্বাধীন নির্বাচন কমিশনই সুষ্ঠু নির্বাচনের গ্যারান্টি নিশ্চিত করতে পারে। তাই দেশ ও জাতির বৃহত্তর স্বার্থ সুরক্ষায় সকল অংশীজনদের দায়িত্বশীল ভূমিকায় এগিয়ে আসতে হবে ।

তিনি গভীর উদ্ভেগ প্রকাশ করে বলেন বর্তমানে বাংলাদেশে দ্রব্যমূল্য অতীতের সকল রেকর্ড ভঙ্গ করেছে। আজ সারাদেশের মানুষ ব্যবসায়ীদের হাতে জিম্মি। এমন কি রাজনীতিবীদরাও। ব্যবসায়ীদের বেঁধে দেওয়া মুল্যে পন্য বেচাকেনা হয়। প্রশাসন, সরকার কাউকেও তোয়াক্কা করছেনা । দূর্নীতি কালোবাজারী এখন ওপেন সিক্রিট হয়ে গেছে। এ গুলোর লাগাম টেনে ধরতেই হবে।

ফিলিস্তিনে ইজরাইলী গণহত্যা বন্ধে বিশ্বের সকল মুসলমানের একতা জরুরী বলে মনে করেন তিনি।তিনি বলেন, ফিলিস্তিনিরা আজ নিজ দেশে পরাধীন। এটা একটা অসম যুদ্ধ। আমেরিকা সহ বিভিন্ন দেশ ইজরাইলকে উসকানি দিচ্ছে বলে মন্তব্য করেন। সাম্প্রতিক ইজরাইলি বর্বরতা পৃথিবীর অন্যতম জঘন্য নৃসংসাতার উদাহরণ। ফিলিস্তিনে সকল ধরনের সাহায্য পাঠানোর জন্য সরকারের প্রতি আহবান করেন। ইজরাইলের সকল পন্য বয়কট করতে দেশবাসীর প্রতি অনুরোধ জানান ।

দ্বাদশ সংসদ নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠ ও গ্রহনযোগ্য করার জন্য সরকারকেই উদ্যোগ নিতে হবে। ভোটের মাধ্যমেই ক্ষমতায় যাওয়ার পথ তৈরী করতে হবে। এ ব্যপারে সকলকে সজাগ থাকার আহবান জানান। বিদেশী প্রভুদের দারস্থ না হয়ে দেশের জনগণ নিয়ে রাজপথে আন্দোলনের মাধ্যমে দাবী আদায়ের পরামর্শ দেন বিভিন্ন রাজনৈতিক দল সমূহকে।

মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ধারন করে ইসলামী মূল্যবোধ সমুন্নত রেখে দেশ পরিচালনার জন্য ইসলামিক ফ্রন্ট বাংলাদেশে যোগদান করতে দেশবাসীকে আহবান জানান।

সংগঠনের মহাসচিব জাতীয় নেতা অধ্যক্ষ আল্লামা জয়নুল আবেদীন জুবাইর বলেছেন- বর্তমানে পৃথিবীর দেশে দেশে সন্ত্রাস দমনের নামে মুসলিম নিধনের কর্মসূচি বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। মুসলমানদের সন্ত্রাসী, মৌলবাদী হিসেবে আখ্যায়িত করা হচ্ছে।

মুক্তচিন্তার মানুষের অন্তরে ইসলামকে একটি সাম্প্রদায়িক ও জঙ্গি ধর্ম হিসেবে চিত্রিত করা হচ্ছে। অথচ ইসলামই বিশ্বের একমাত্র প্রগতিশীল, অপরাপর সকল ধর্মের প্রতি সহানুভূতিশীল, শোষনমুক্ত ও কালজয়ী এক কার্যকর ব্যবস্থা হিসেবে আজ প্রমাণিত সত্য। সুতরাং মুসলমানদের মধ্যে পারস্পরিক সুদৃঢ় ঐক্য ও সংহতি প্রতিষ্ঠায় কার্যকর পদক্ষেপ বাস্তবায়নের কোন বিকল্প নেই।

রাজনৈতিক দলগুলো ক্ষমতার বাইরে থাকা অবস্থায় বিদেশিদের নিকট একে অপরের বিরুদ্ধে নালিশ জানায়। বিদেশিদের ক্ষমতা মাড়ানোর সিঁড়ি হিসেবে বিবেচনা করে। এ সুযোগেই এরা এদেশের অভ্যন্তরীন বিষয় নিয়ে নাক গলানোর স্পর্ধা দেখায়। যা নিতান্ত দূঃখজনক।

নিত্যপণ্যের উর্ধ্বগতি নিয়ন্ত্রনে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ চরমভাবে ব্যর্থ হয়েছে। পণ্যসামগ্রীর লাগামহীন ঊর্ধ্বগতি সাধারণ জনগণ দিশেহারা হয়ে উঠেছে। তিনি পণ্যমূল্য নিয়ন্ত্রনে দ্রুত কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ করার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের নিকট জোর দাবি জানান।

ইসলামিক ফ্রন্ট বাংলাদেশ হাজীগঞ্জ উপজেলার শাখার উদ্যোগে অদ্য ২৬ অক্টোবর ২৩ইং বৃহস্পতিবার বিকেল ৩টায় হাজীগঞ্জ পশ্চিম বাজারে স্বাধীন নির্বাচন কমিশনের অধীনে অবাধ সুষ্ঠু, নিরপেক্ষ ও অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন আয়োজন এবং দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি নিয়ন্ত্রণের দাবিতে অনুষ্ঠিত জনসভায় বক্তারা উপরোক্ত মন্তব্য করেন।

ইসলামিক ফ্রন্ট বাংলাদেশ হাজীগঞ্জ উপজেলা সভাপতি জননেতা জাকির হোসেন মিয়াজির সভাপতিত্বে এবং মাষ্টার দেলোয়ার হোসেন এর পরিচালনায় অনুষ্ঠিত জনসভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- ইসলামিক ফ্রন্ট বাংলাদেশ এর কেন্দ্রীয় চেয়ারম্যান জাতীয় নেতা পীরে তরিকত আল্লামা সৈয়দ বাহাদুর শাহ মোজাদ্দেদী।

প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- ইসলামিক ফ্রন্ট বাংলাদেশ এর কেন্দ্রীয় মহাসচিব জাতীয় নেতা শায়খুল হাদিস অধ্যক্ষ আল্লামা জয়নুল আবেদীন জুবাইর। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- ভাইস চেয়ারম্যান আল্লামা মোশারফ হোসনে হেলালী, সৈয়দ মাহমুদ শাহ, ড. এস. এম. হুজ্জাতুল্লা, আল্লামা নাজমুল হক আখন্দ, স.ম. হামেদ হোসাইন, এইচ. এম . মুজিবুল হক সাকুর, এম ওয়াহেদ মুরাদ, যুব ফ্রন্ট কেন্দ্রীয় আহবাহক এম. মনির হোসাইন, জেলা সভাপতি অধ্যক্ষ মফিজুল ইসলাম, সাধারন সম্পাদক আল্লামা আবুল হাশেম মিয়াজী, এড. ইমদাদুল হক পাটোয়ারী, ইসলামী ছাত্রসেনার কেন্দ্রীয় সভাপতি শেখ ফরিদ মজুমদার, জেলা নেতা মাষ্টার হেলাল আহমেদ, ইউছুফ হাসান মাহমুদী, মঞ্জুর আলম পাটোয়ারী প্রমুখ।







সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত

এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ