মঙ্গলবার ১৬ এপ্রিল ২০২৪ ৩ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

দাবানলে কানাডায় জরুরি অবস্থা জারি
প্রকাশ: শনিবার, ১৯ আগস্ট ২০২৩, ১১:১১ পূর্বাহ্ণ

ভয়াবহ দাবানলের কারণে কানাডার পশ্চিমাঞ্চলে অবস্থিত ব্রিটিশ কলম্বিয়া প্রদেশে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করা হয়েছে। সেখানে দাবানল দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে। এতে পশ্চিম কেলোনা শহরের আশেপাশের এলাকায় আরও ঘরবাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার হুমকি তৈরি হয়েছে।

ব্রিটিশ কলম্বিয়ার প্রিমিয়ার ডেভিড ইবি সতর্ক করেছেন যে, পরিস্থিতি দ্রুত খারাপের দিকে যাচ্ছে এবং সামনের দিনগুলো বেশ চ্যালেঞ্জিং। ম্যাকডুগাল ক্রিকের দাবানল গত ২৪ ঘন্টায় ৬ হাজার ৮০০ হেক্টর এলাকায় ছড়িয়ে পড়েছে। সেখানকার প্রায় সাড়ে চার হাজার মানুষকে সরিয়ে নেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

ইতোমধ্যেই কানাডার উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের প্রায় ২২ হাজার মানুষ দাবানলের কারণে বাস্তুচ্যুত হয়েছে। এদিকে কানাডিয়ান সরকার জানিয়েছে, প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো দাবানল নিয়ে আলোচনা করার জন্য একটি জরুরি কমিটির আহ্বান করবেন, যা ইনসিডেন্ট রেসপন্স গ্রুপ নামে পরিচিত। গত কয়েক মাস ধরেই দাবানলে বিপর্যস্ত দেশটির বেশ কিছু অঞ্চল।

কর্তৃপক্ষ ইয়েলোনাইফের প্রায় ২০ হাজার বাসিন্দাকে শুক্রবারের (১৮ আগস্ট) মধ্যে শহর ছেড়ে যাওয়ার আহ্বান জানিয়েছে। আশপাশের এলাকাগুলো থেকেও মানুষকে সরিয়ে নেওয়া হচ্ছে।

ইয়েলোনাইফ বিমানবন্দরে ফ্লাইটের জন্য অপেক্ষারত টিফানি শ্যাম্পেন বলেন, আমার আগে থেকেই হাঁপানি রয়েছে। কিন্তু দাবানলের ধোঁয়ার কারণে অবস্থা আরও খারাপ হয়েছে।

এদিকে বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ বাসিন্দাদের ফ্লাইটের কমপক্ষে দুই ঘন্টা আগে পৌঁছানোর জন্য সতর্ক করেছে। কারণ এরই মধ্যে যাত্রী ট্রাফিক বেড়ে গেছে।

ব্রিটিশ কলম্বিয়ার প্রিমিয়ার ডেভিড ইবি বলেন, চলতি বছর আমরা এখন পর্যন্ত সবচেয়ে খারাপ দাবানল পরিস্থিতির মুখোমুখি হয়েছি। তিনি বলেন, পরিস্থিতি দ্রুত অবনতির দিকে যাওয়ায় আমরা প্রাদেশিক জরুরি অবস্থা ঘোষণা করছি। তবে এখন পর্যন্ত ওই প্রদেশে কোনো হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি বলে নিশ্চিত করেন তিনি।

সম্প্রতি দাবানল ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে কানাডায়। দেশটিতে অন্তত এক হাজার সক্রিয় দাবানল রয়েছে। এর মধ্যে উত্তরপশ্চিমাঞ্চলেই দুই শতাধিক দাবানলের খবর পাওয়া গেছে।

 







সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত

এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ