বুধবার ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ৮ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

চায়ের দোকানি-ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের কপালে চিন্তার ভাঁজ
প্রকাশ: বুধবার, ২৫ অক্টোবর ২০২৩, ০৫:২৭ অপরাহ্ণ

সরকার পতনের এক দফা দাবিতে আগামী ২৮ অক্টোবর ঢাকায় মহাসমাবেশের ঘোষণা দিয়েছে বিএনপি। একই দাবিতে ওইদিন সমাবেশ করবে সমমনা দলগুলো। তবে ওইদিন রাজপথ দখলে রাখতে চায় আওয়ামী লীগ। বিএনপি নয়াপল্টনে মহাসমাবেশ করলে বায়তুল মোকাররমের দক্ষিণ গেটে অবস্থান কর্মসূচি করবে আওয়ামী লীগ। একইদিনে মতিঝিল শাপলা চত্বরে মহাসমাবেশ করতে ডিএমপিতে আবেদন করেছে জামায়াত।

এখন পর্যন্ত আনুষ্ঠানিকভাবে কোনো দলেরই সমাবেশের অনুমতি না মিললেও এরই মধ্যে ২৮ অক্টোবরের কর্মসূচি ঘিরে তৈরি হয়েছে উৎকণ্ঠা। ওইদিনের রাজনৈতিক কর্মসূচি ঘিরে বড় ধরনের বিশৃঙ্খলার আশঙ্কা করছেন মতিঝিল ও আশপাশ এলাকার ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরা।

বুধবার (২৫ অক্টোবর) কথা হয় নুর ইসলামের সঙ্গে। মতিঝিল এলাকায় চায়ের দোকান চালান তিনি। নুর ইসলাম বলেন, ‘রাজনৈতিক সভা-সমাবেশ হবে এতে আমাদের কিছু বলার নেই। তবে সেটা যেন হয় শৃঙ্খলার সঙ্গে। এর আগে এ ধরনের রাজনৈতিক কর্মসূচিতে মতিঝিল এলাকার ব্যবসায়ীরা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন। অনেকের দোকান পুড়েছে। এবার যেন সুষ্ঠুভাবে সমাবেশ হয়- এ প্রত্যাশা থাকবে।’

মতিঝিল এলাকার ভাসমান ফলের দোকানি সাইফুল ইসলাম। তিনি বলেন, ‘এমনিতে সাপ্তাহিক বন্ধের দিনে বেচাবিক্রি কম হয়। এরপর যদি তিন দলের সভা (সমাবেশ) হয়, তাহলে আমরা বসতেই পারবো না। কী হবে ওইদিন (২৮ অক্টোবর) তাও বুঝতেছি না। অনেকেই বলছেন বড় ধরনের বিশৃঙ্খলা দেখা দেবে।’

তিনি বলেন, ‘সাধারণত কোনো বড় অঘটন ঘটলে আমাদের দোকানের ওপরই সবাই হামলে পড়ে। অনেক সময় আগুনের ঘটনাও ঘটে। আমরা খেটে খাওয়া মানুষ, কিছু ঘটলে পরিবার নিয়ে শঙ্কা তৈরি হয়।’

টং দোকানি হাসান বলেন, ‘এখন পর্যন্ত যেটা শুনছি তাতে মনে হচ্ছে বড় কিছু হতে যাচ্ছে। শুনছি শাপলা চত্বরে জামায়াতও সমাবেশ করবে। এতে আরও বেশি সমস্যা তৈরি হবে। পুলিশের সঙ্গেও ঝামেলা তৈরি হতে পারে। শঙ্কা কাজ করছে, জানি না কী হবে। আমাদের চাওয়া একটাই, সব দলের সভা-সমাবেশ হোক সুষ্ঠুভাবে। কোনো ধরনের অপ্রীতিকর পরিবেশ যেন না হয়। এটা হলে অফিসপাড়া খ্যাত মতিঝিল ও আশপাশের সবাই ক্ষতিগ্রস্ত হবেন।’







সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত

এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ