জামানতের টাকা ফেরতের দাবিতে ব্যবসায়ীদের মানববন্ধন

0
295

ডেস্ক রিপোর্ট : নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে আড়ৎ এর জামানতের সাড়ে ৪ কোটি টাকা ফেরতের দাবিতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল কর্মসূচী পালন করেছে ব্যবসায়ীরা।

রবিবার দুপুরে উপজেলার মঠেরঘাট এলাকায় রূপগঞ্জ প্রেসক্লাব কার্যালয়ের সামনে এ কর্মসূচী পালন করেন তারা। এসময় বক্তব্য রাখেন, আড়ৎ এর ব্যবসায়ী রাসেল, দিলরুবা, মুফতি নুরুল নগরী ও সোহেল প্রমূখ।

এ সময় ভুক্তভোগী ব্যবসায়ীরা জানান, নরসিংদী জেলার রায়পুরা থানার ধুকুন্দিরচর এলাকার কামাল হোসেন, অহিদুর রহমান, সায়েম, আলমগীর মিলে রূপগঞ্জ উপজেলার ভুলতা এলাকায় একটি পাইকারি কাচাঁমালের আড়ৎ চালু করেন। গত বছরের শুরু দিকে তারা আড়ৎ এর সাড়ে ৩ শতাধিক দোকান প্রতিটি ১ লাখ ১৫ হাজার টাকায় বরাদ্দ দেওয়া শুরু করেন। আড়ৎ এর ব্যবসায়ী রাসেল, দিলরুবা, মুফতি নুরুল নগরী ও সোহেলসহ প্রায় দেড় শতাধিক ব্যবসায়ী প্রায় সাড়ে ৪ কোটি টাকায় সাড়ে ৩’ শ দোকানঘর বরাদ্দ নেন। এ টাকা দেওয়ার সময় কামাল হোসেনসহ তার লোকজন ব্যবসায়ীদের মানি রিসিট প্রদান করে। আড়ৎ লোকসানের দিকে যাওয়ায় কামাল হোসেনসহ তার সহযোগীরা ব্যবসায়ীদের সাড়ে ৪ কোটি টাকা জামানত ফেরত না দিয়েই আড়ৎ বন্ধ করে দেয়। গত ২৪ সেপ্টেম্বর কামাল হোসেনের লোকজন আড়ৎ এর দোকানের বাঁশ, টিন ও খুঁটি খুলতে থাকে। এসময় ব্যবসায়ীরা বাঁধা প্রদান করলে তারা তাদেরকে এলোপাথারিভাবে পেটায় ও হত্যার হুমকি ধামকি প্রদান করে। কামাল হোসেনসহ তার সহযোগীরা ব্যবসায়ীদের টাকা আত্মসাতের চেষ্টা চালাচ্ছে।

এ ব্যাপারে ব্যবসায়ীরা উপজেলা চেয়ারম্যান শাহজাহান ভুইয়া, উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) শাহ্ নূসরাত জাহান, রূপগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এএফএম সায়েদসহ বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত অভিযোগ দেন।

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত কামাল হোসেন বলেন, আমি যে টাকা আড়ৎ এ ইনভেষ্ট করেছি। তাতে আমি পুরোটাই ক্ষতিগ্রস্থ্য। বেশিরভাগ ব্যবসায়ীকেই টাকা ফেরত দিয়ে দিয়েছি। বাকীদের টাকাও ফেরত দিয়ে দেওয়া হবে কিন্তু আমাকে দুই মাস সময় দিতে হবে।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) শাহ্ নূসরাত জাহানের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি ফোনটি রিসিভ করেননি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here