রূপগঞ্জে ৬ হাজার পরিবারকে খাদ্য সামগ্রী দিলো বসুন্ধরা গ্রুপ

0
482

ডেস্ক রিপোর্ট : আমাগো তো করোনার পরের থাইকা কাজ নাই। বাড়িতে ভাড়া দিতে পারতাসিনা ঠিকমত খামু কি? এর মধ্যে ১ বেলা খাই তো দুই বেলা না খাইয়া থাকি। তবে বসুন্ধরা গ্রুপ করোনার শুরু থাইকাই আমাগো খাওন দিতাসে। আইজকা আবার দিলো, এডি দিয়া ১ মাস আপাতত নিশ্চিন্তে থাকতে পারুম। আল্লায় বসুন্ধরা গ্রুপরে আরো বড় করুক যাতে কইরা হেরা আমাগো পাশে আরো দাড়াইতে পারে। কথাগুলো বলছিলেন রূপগঞ্জের কাঞ্চন পৌরসভার অস্থায়ী বাসিন্দা আলেয়া বেগম। বসুন্ধরা গ্রুপের খাদ্য সামগ্রী উপহার পেয়ে তিনি এসব কথা বলেন। এর আগেও লকডাউন চলাকালীন সময় তিনি বসুন্ধরার খাদ্য সামগ্রী পেয়েছেন বলে জানান। শুধু আলেয়া বেগম নয় সালেহা, আব্দুল মতিন, নাসিমা বেগম, কুদ্দুস আলীসহ সকলেই খুশি বসুন্ধরা গ্রুপের খাদ্য সামগ্রী পেয়ে খুশি।

শনিবার সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত বসুন্ধরা গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সায়েম সোবহান আনভীরের পক্ষ থেকে রূপগঞ্জ উপজেলার কাঞ্চন পৌরসভা ও রূপগঞ্জ ইউনিয়নে ২ হাজার করে মোট ৬ হাজার হতদরিদ্র পরিবারকে চাল, ডাল, আলু, ভোজ্য তেলসহ একমাসের খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে।

শনিবার বেলা ১১ টার দিকে কাঞ্চন পৌরসভা কার্যালয়ে খাদ্য সামগ্রী বিতরণকালে উপস্থিত ছিলেন, কাঞ্চন পৌরসভার মেয়র রফিকুল ইসলাম রফিক।

এদিকে, বেলা ১২ টার দিকে রূপগঞ্জ ইউনিয়নের খাদ্য সামগ্রী বিতরণকালে উপস্থিত ছিলেন, রূপগঞ্জ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সালাউদ্দিন ভুইয়া, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি হাফিজুর রহমান সজীব, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মাসুম চৌধুরী অপু, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি মনিরুজ্জামান মনির। অপরদিকে, বিকেল ৫ টার দিকে দাউদপুর ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে খাদ্য সামগ্রী বিতরণকালে উপস্থিত ছিলেন, দাউদপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম জাহাঙ্গীর, বাংলাদেশ হকার্সলীগের যুগ্ন সম্পাদক কামাল হোসেন কমল, জেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আশিকুল ইসলাম খোকন, প্যানেল চেয়ারম্যান আব্দুর রাজ্জাক প্রমূখ।

খাদ্য সামগ্রী বিতরণকালে অতিথিরা বলেন, করোনাকালীন সময় লকডাউনের মাঝে দেশের অন্যতম বৃহৎ শিল্পগোষ্ঠী বসুন্ধরা গ্রুপ রূপগঞ্জের অসহায় মানুষে পাশে ছিল। এর ধারবাহিকতায় এবার একটি পৌরসভা ও দুটি ইউনিয়নে ৬ হাজার মানুষকে বসুন্ধরা গ্রুপ একমাসের খাদ্য সমাগ্রী বিতরণ করেছে। বসুন্ধরা গ্রুপ রূপগঞ্জে সাধারণ মানুষের পাশে ছিল ভবিশ্যতে থাকবে আশা রাখি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here