রূপগঞ্জে হাশেম ফুড এন্ড ভেবারেজ কারখানায় ভয়াবহ অগ্নিকান্ড,নিহত-২

0
155

ডেস্ক রিপোর্ট : নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে সজীব গ্রুপের অঙ্গ প্রতিষ্ঠান হাশেম ফুড এন্ড ভেবারেজ কারখানায় ভয়াবহ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় স্বপ্না রানী (৪৫) ও মিনা আক্তার (৩৩) নামের দুই নারী নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন অন্তত ৫০ জন। সন্ধ্যা সোয়া ৭টায় এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ডেমড়া, কাঞ্চনসহ ফায়ার সার্ভিসের ০৬টি ইউনিট আগুন নেভানোর চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। আহতদের স্থানীয় ইউএসবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালসহ ঢাকার বিভিন্ন হাসপাতালে আহতদের পাঠানো হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকেল ৫টার দিকে উপজেলার কর্ণগোপ এলাকায় অবস্থিত ওই কারখানায় এ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন, সিলেট জেলার যতি সরকারের স্ত্রী স্বপ্না রানী ও উপজেলার গোলাকান্দাইল নতুন বাজার এলাকার হারুন মিয়ার স্ত্রী মিনা আক্তার।

শ্রমিক ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, কর্ণগোপ এলাকায় অবস্থিত সজীব গ্রুপের অঙ্গ প্রতিষ্ঠান সেজান জুস কারখানায় প্রায় ৭ হাজার শ্রমিক কর্মচারী কাজ করেন। ৭তলা ভবনে থাকা কারখাটির নিচ তলার একটি ফ্লোরের কার্টুন থেকে হঠাৎ করে আগুনের সুত্রপাত ঘটে। এসময় আগুনের লেলিহান শিখা বাড়তে শুরু করে। এক পর্যায়ে আগুন পুরো ভবনে ছড়িয়ে পড়ে। এসময় কালো ধোয়ায় কারখানাটি অন্ধকার হয়ে যায়। এক পর্যায়ে শ্রমিকরা ছুটাছুটি করতে শুরু করেন। কেউ কেউ ভবনের ছাদে অবস্থান নেয়। আবার কেউ কেউ ছাদ থেকে লাফিয়ে পড়তে শুরু করে। এসময় ঘটনাস্থলেই রানী ও মিনা আক্তার নামের দুই নারী নিহত হন। মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেন ইউএসবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের দায়িত্বরত চিকিৎসক শাহাদাত হোসেন। এছাড়া গুরুতর আহত বাকিদের এম্বোলেন্সসহ বিভিন্ন পরিবহনে করে ঢাকার বিভিন্ন হাসপাতালে পাঠানো হয়।

প্রত্যক্ষদর্শী নিহত স্বপ্না রানীর মেয়ে শ্রমিক বিশ^খা রানী বলেন, অনেক শ্রমিক কারখানার ভবনের ভেতরে আটকা রয়েছে। তাদেরকে বের করা না হলে সবাই মারা যাবে।
নারায়ণগঞ্জ জেলা ফায়ার সার্ভিসের উপ-পরিচালক আব্দুল আল আরিফিন বলেন, ফায়ার সার্ভিসের ৬টি ইউনিট আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে কাজ করে যাচ্ছেন। তবে, আগুন নিয়ন্ত্রণে আসেনি। আটকা পড়া শ্রমিকদের উদ্ধার করার চেষ্টা চলছে।

বিস্তারিত আসছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here