বালু নদে বৈধ স্থাপনা উচ্ছেদের অভিযোগ, ক্ষতি কয়েক লাখ টাকা

0
244

ডেস্ক রিপোর্ট : নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে গত রোববার বালু নদের তীরে বিআইডব্লিউটিএর অবৈধ উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা নিয়ে অভিযোগ উঠেছে। অবৈধ উচ্ছেদ করতে গিয়ে বেশকিছু বৈধ স্থাপনাও উচ্ছেদ করেছে বলে অভিযোগ রয়েছে।

 

ৎকোনপ্রকার নোটিশ ছাড়াই এ অভিযান পরিচালনা করায় কোনপ্রকার প্রস্তুতি না থাকায় স্থাপনা মালিকরা ব্যাপক ক্ষতির শিকার হয়েছেন। ফলে দশ লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে এমনটাই বলেছেন বৈধ স্থাপনার মালিকরা।

জানা গেছে, গত রবিবার দুপুরে হঠ্যাৎ টঙ্গী বিআইডব্লিউটিএর নেতৃত্বে বালু নদের পশ্চিমগাঁও থেকে কামশহর পর্যন্ত উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করে। কোন প্রকার নোটিশ ছাড়াই আকস্মিক অভিযানে নামে বিআইডব্লিউটিএ। এসময় অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদের পাশাপাশি বেশকিছু বৈধ স্থাপনাও উচ্ছেদ করে। নগরপাড়া এলাকার মাসুম আহম্মেদ অভিযোগ করে বলেন, তিনি নিয়ম মেনে তার জমির পাশে ১৩ টি পিলার স্থাপনা করেন। নদীর সীমানা পিলারের দুই প্লট পর তার জমি।

 

রবিবার দুপুরে বিনা নোটিশে বিআইডব্লিউটিএ তার ১৩ টি পিলার গুড়িয়ে দেয়। ফলে প্রায় ৬ লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে তিনি জানান। তিনি বলেন, সীমানা পিলারের পরে যদি স্থাপনা নির্মাণ করতাম তাহলে আমার স্থাপনা ভেঙ্গে দিলে কষ্ট থাকতো না। মোস্তফা কামাল নামে এক ব্যবসায়ী বলেন, আমি নদীর সীমানা পিলার দেখে তারপর জমি কিনেছি। আমার জমির পাশে পিলার দিয়েছি।

 

কিন্তু বিআইডব্লিউটিএ সীমানা পিলার না দেখেই আমার বৈধ পিলার গুড়িয়ে দিয়েছে। মাসুদ ভূঁইয়া আরেক ব্যবসায়ী বলেন, আমার জমির কাগজপত্র সব সঠিক। বিআইডব্লিউটিএ কিভাবে আমার পিলার ভেঙ্গে দিলো।

 

এ ব্যাপারে নারায়ণগঞ্জ জেলা বিআইডব্লিউটিএর যুগ্ম পরিচালক শেখ মাসুদ কামাল বলেন, আমরা করিনি। টঙ্গীর নদী বন্দর কর্তৃপক্ষ এ অভিযান পরিচালনা করেছে। টঙ্গী নদী বন্দর কর্তৃপক্ষের বক্তব্য নিতে বহু চেষ্টা করেও কাউকে পাওয়া যায়নি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here