তারাবতে ভারত ফেরত ব্যক্তির করোনা শনাক্ত

0
453

ডেস্ক রিপোর্ট : নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে ভারত ফেরত এক যুবকের (২৭) দেহে করোনা ভাইরাস শনাক্ত করা হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে এটি করোনা ভাইরাসের ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট। তার বাড়ি উপজেলার তারাব পৌরসভার ৬ নং ওয়ার্ডের বরপা এলাকায়। বুধবার বেলা ১১ টার দিকে উপজেলার স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা নূরজাহান আর খাতুন বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

এর আগে বুধবার সকালে রূপগঞ্জের তারাব পৌর এলাকার বাসায় আইসোলেটেড করা হয়। প্রয়োজনে যে কোন সময় তাকে হাসপাতালে স্থানান্তর করা হতে পারে। তার পুরো বাড়িটির সকল সদস্যদের কোয়ারেন্টাইন নিশ্চিত করা একান্ত জরুরী বিধায় পুরো বাড়িটি লকডাউন করে রেখেছে রূপগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ।

ডা ঃ নূরজাহান আরা খাতুন জানান, গত ৪ বছর ধরে তিনি ভারতের চেন্নাইতে কাজ করে আসছিলেন। সেখানে করোনা পরিস্থিতি খারাপ হওয়ায় তিনি ভয়ে বর্ডার পার হয়ে ৯ মে দেশে আসেন। প্রথমে তিনি বিমানে আখাউড়া পর্যন্ত আসেন, সেখান থেকে দালালের মাধ্যমে বর্ডার ক্রস করেন। এলাকায় বিষয়টি জানাজানি হলে ১০ মে থেকে তাকে নজরদারিতে রাখা হয়। ওইদিনই তার নমুনা সংগ্রহ করা হয় এবং ১১ মে রাতে তার দেহে করোনা ভাইরাস শনাক্ত করা হয়। পরে সকালেই উপজেলা প্রশাসন ও রূপগঞ্জ থানা পুলিশের সহায়তায় উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ ওই যুবকের বাড়ি লকডাউন করে দেন এবং ওই তার পরিবারের সবার হোম কোয়ারেন্টাইন নিশ্চিত করা হয়। ওই যুবক ও তার পরিবারের কোন সদস্য ঈদ জামায়াতে অংশগ্রহণ করতে পারবে না।

জেলা করোনার ফোকাল পারসন ডা. জাহিদুল ইসলাম জানান, ভারতের চেন্নাই ফেরত একজন বাংলাদেশীর শরীরে কোরোনা সনাক্ত হয়েছে। তাকে তার তারাবোর বাসায় হোম আইসোলেশনে রাখা হয়েছে। প্রয়োজনে যে কোন সময় তাকে হাসপাতালে স্থানান্তর করা হতে পারে। তার পুরো বাড়িটির সকল সদস্যদের কোয়ারেন্টাইন নিশ্চিত করা একান্ত জরুরী বিধায় পুরো বাড়িটি লকডাউন করে রেখেছে রূপগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এই বিষয়ে ইতোমধ্যে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করছেন। স্থানীয় কাউন্সিলরকে পুরো বাড়ি লকডাউনের বিষয়টি সার্বক্ষণিক নজরদারি রাখতে নির্দেশ প্রদান করা হয়েছে।

তিনি জানান, তার দেহে ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট রয়েছে কিনা সেটি পরীক্ষা করা হয়নি তবে যেহেতু তিনি সেখানেই কাজ করতেন তাই ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট হবার সম্ভাবনা অনেক। আমরা এ ব্যাপারে সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইন্সটিটিউটকে (আইইডিসিআর) জানাব। যদি প্রয়োজন মনে করা হয় তবে এটি ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট কিনা পরীক্ষা করা হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here