বাঁশ কাটাকে কেন্দ্র করে রূপগঞ্জে মা-বাবা, মেয়েকে কামড়িয়ে ও পিটিয়ে জখম

0
152

ডেস্ক রিপোর্ট : নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে বাঁশ কাটাকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের লোকজন বসতবাড়িতে দুই দফায় হামলা চালিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।হামলাকারীরা মা-বাবা ও মেয়েকে কামড়িয়ে এবং লাঠিপেটা করে রক্তাক্ত জখম করেছে । শুধু তাই নয়, মেয়েকে শ্লীতলাহানির ঘটনাও ঘটানো হয়। থানায় অভিযোগ করেও পালিয়ে বেড়াচ্ছে পরিবারটি।

সোমবার রাতে উপজেলার সুরিয়াবো এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

আহত রওশনয়ারা বেগম জানান, তিনি তাদের বাড়িতে বাঁশ দিয়ে বাউন্ডারি করতে নিজের জমিতে থাকা বাঁশ বাগান থেকে থেকে বাঁশ কাটতে যান। এ সময় প্রতিপক্ষ সামসুন্নাহার, ছেলে সোলমান, শান্ত বাবু রাজাসহ তাদের লোকজন বাঁধা দেয়। এসময় বাঁধার কারন জিজ্ঞাস করতেই প্রতিপক্ষের লোকজন ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে। এক পর্যায়ে গত রোববার দুপুর ১টার দিকে প্রতিপক্ষের লোকজন কাঠের ডাসা ও লাঠিসোটা নিয়ে রওশনয়ারা বেগমের বসতবাড়িতে হামলা চালায়। এসময় রওশনয়ারাকে কাঠের ডাসা দিয়ে পিটিয়ে গুরুতর আহত করে। তাকে বাঁচাতে এগিয়ে এলে রওশনয়ারার স্বামী খোকন মিয়াকে এলোপাথারি ভাবে পিটিয়ে আহত করে। পরে তাদের মেয়ে কাকুলিকে কামড়িয়ে শরীরের বিভিন্ন অংশ রক্তাক্ত জখম করে। এছাড়া শ্লীলহানির ঘটনা ঘটায়। আহতদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। এসময় গলায় থাকা একটি স্বর্ণের চেইন ছিনিয়ে নেয়। শুধু তাই নয়, এ বিষয়টি নিয়ে কোন প্রকার বারাবারি করলে হামলাকারীরা তাদের মিথ্যা মামলা-হামলা দিয়ে হয়রানি করবে বলে হুমকি দেয়।

এ ঘটনায় রওশনয়ারার দেবর সফিকুল ইসলাম প্রতিবাদ করায় তাকেও অব্যাহত হত্যার হুমকি দিয়ে আসছে। মঙ্গলবার রাতে ফের হামলাকারীরা বসতবাড়িতে হামলার ঘটনা ঘটায়।

হামলাকারীদের হুমকির মুখে পরিবারটি চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন। এ ব্যপারে পুলিশ প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

এ বিষয়ে রূপগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এইচ এম জসিম উদ্দিন বলেন, এ ঘটনার তদন্ত করে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here