গোলাকান্দাইলে দুই গ্রুপের তান্ডব ভাংচুর লুটপাট : আহত ১৫

0
238

ডেস্ক রিপোর্ট : নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে শওকত আলী রিয়াজ (১৮) নামে এক স্কুল ছাত্রকে কুপিয়ে আহত করার জেরে দুই গ্রুপের রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ, ভাংচুর এবং লুটপাটের ঘটনা ঘটেছে। এতে অন্তত ১৫ জন আহত হয়েছে।

রবিবার (১৮ এপ্রিল) রাতে উপজেলার গোলাকান্দাইল ইউনিয়নের নতুন বাজার এলাকায় এ ঘটনাটি ঘটে।

স্কুল ছাত্র শওকত আলী রিয়াজের আহতের খবর ছড়িয়ে পড়লে, তার লোকজনও রবিবার রাতে ১০টায় দেশীয় অস্ত্রশস্ত্রে সজ্জিত হয়ে প্রতিপক্ষের লোকজনের উপর হামলা চালায়। এসময় রূপগঞ্জে মাসুম বিল্লাহ বাহিনী ও রিয়াজের স্বজনদেও তান্ডবে তোফাজ্জল, মোয়াজ্জেম হোসেন,আওলাদ হোসেন, সেলিম, ও কামালসহ উভয় পক্ষের ১৫জন আহত হয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে।
সন্ত্রাসীরা দফায় দফায় বাগ মোচড়া, নতুন বাজারসহ পুরো এলাকায় বিভিন্ন বাড়ি ঘর, কয়েকটি ঔষধের দোকান, মুদি দোকান, চায়ের দোকানে দেশীও অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে ক্ষয়ক্ষতি করে মালামাল লুট করে।

চায়ের দোকান্দার মোয়াজ্জেম হোসেন বলেন, আমার দোকানে রাম দা দিয়ে কয়েকটা কোপ দেয় ও প্রাণে মারার হুমকি দিলে দোকান রেখে পালিয়ে গিয়েছি।

স্থানীয় চিকিৎসক সাব্বির হোসেন বলেন, আমাকে কিছু না বলে দোকানে ঢুকেই ভাংচুর করে চলে যায়।

গোলাকান্দাইল ইউনিয়নের ৬ নং ওয়ার্ডেও ইউপি সদস্য নাসির উদ্দীন বলেন, সন্ত্রাসীরা আমার ভাই নূর আলমের বাড়িতে ঢুকে ঘরের জানালা দরজা কুপিয়ে চলে যায়, কাউকে চিনতে পারিনি। নিজের নিরাপত্তার অভাবে তিনি বের হননি বলে জানান।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, সম্প্রতি উপজেলার মাছিমপুর এলাকার দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী শওকত আলী রিয়াজ প্রেম করে বিয়ে করে। পরিবারের পক্ষ থেকে তাদের মেনে না নেয়ায় স্ত্রীকে নিয়ে নতুন বাজার এলাকার জসীম মিয়ার বাড়িতে ভাড়া থাকতেন। এসময় স্থানীয় রনি, মাসুদ, মাসুম, শরিফ, আরিফের সাথে বিরোধ চলে আসছিল। সমস্যা ভেবে রিয়াজ কিছু দিন আগে এখান থেকে বাসা ছেড়ে চলে যায়। আসবাবপত্র নিতে রবিবার সন্ধায় হোন্ডায় স্ত্রীকে সাথে নিয়ে ভাড়ার বাসায় ঢুকার সাথে সাথে মাসুম বিল্লাহ বাহিনীর লোকজন রিয়াজকে তাদের হাতে থাকা ধারালো অস্ত্র দিয়ে তাকে কুপিয়ে গুরুতর জখম করেন। তার চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে আসলে তারা পালিয়ে যায়। পরে তাকে উদ্ধার করে স্থানীয় ইউএস-বাংলা হাসপাতালে নিলে দায়িত্বরত চিকিৎসক তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজে রেফার করেন। বর্তমানে তার অবস্থা আশঙ্কাজনক।

ভুলতা ফাঁরির এসআই মেহেদি হাসান জানান, আমরা যাওয়ার আগেই সন্ত্রাসীরা পালিয়ে গিয়েছে। রিয়াজসহ চার পাঁচ জন আহত হওয়ার খবর শুনেছি। মুলত মাসুম বিল্লাহ ও রিয়াজ বাহিনীর তান্ডব চালিয়েছে এখানে।

এ ব্যাপারে রূপগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জসিম উদ্দিন বলেন, তদন্ত চলছে, মামলা প্রক্রিয়াধীন। যারা এ তান্ডবে জড়িত তাদের আইনের আওতায় আনা হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here