উপজেলা ছাত্রদলের কমিটি বাতিলের দাবিতে নেতাকর্মীদের সংবাদ সম্মেলন

0
492

ডেস্ক রিপোর্ট : দীর্ঘ ১৯ বছর পর নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলা ছাত্রদলের সদ্য ঘোষিত ২১ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি বাতিলের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন করেছে কমিটিতে থাকায় ছাত্রদলের ১৩ নেতাকর্মীসহ অন্যান্য নেতাকর্মীরা।

 

মোটা অংকের অর্থের বিনিময়ে বিবাহিত, ছাত্রলীগ কর্মী ও বির্তকিতদের এ কমিটিতে স্থান দেয়া হয়েছে বলেও অভিযোগ করছেন নেতাকর্মীরা।

 

শনিবার বিকেলে রূপগঞ্জ প্রেসক্লাব কার্যালয়ে উপজেলা ছাত্রদলের কমিটিতে থাকা ১৩ জন সদস্যসহ ছাত্রদলের অন্যান্য নেতাকর্মীরা সংবাদ সম্মেলন করেন।

 

এসময় সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্যে রাখেন, ছাত্রদল নেতা নাহিদ হাসান ভুইয়া, মাছুম বিল্লাহ, মেহেদী হাসান মিঠু, আলমগীর হোসেন নয়ন, হাবিবুর রহমান হাবিব, জাহিদুল ইসলাম, আশরাফুল ইসলাম হৃদয়, কামরুল হাসান, শরীফ হোসাইন, ইসহাক, হুমায়ুন কবির টিটু, পাবেল মোল্লা, জুবায়ের মোল্লা প্রমুখ।

 

সংবাদ সম্মেলনে ছাত্রদল নেতাকর্মীরা অভিযোগ করেন, সুলতান মাহমুদকে আহবায়ক ও মাসুদুর রহমান মাসুদকে সদস্য সচিব করে ২১ সদস্য বিশিষ্ট রূপগঞ্জ উপজেলা ছাত্রদলের আহবায়ক কমিটি ঘোষণা করেন নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাত্রদলের সভাপতি মশিউর রহমান রনি ও সাধারণ সম্পাদক খাইরুল ইসলাম সজীব। মোটা অংকের অর্থের বিনিময়ে বিবাহিত, ছাত্রলীগ কর্মী ও বির্তকিতদের এ কমিটিতে স্থান দেয়ায় ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে নেতাকর্মীদের মাঝে।

 

সংবাদ সম্মেলনে ছাত্রদল নেতাকর্মীরা অভিযোগ করেন, কমিটির আহবায়ক সুলতান মাহমুদ একজন বিবাহিত। তিনি দাউদপুর ইউনিয়ন যুবদলের সাবেক সভাপতি জামান মিয়ার মেয়ে জান্নাতুল ফেরদৌসি জেরিনকে ২০১৮ সালে বিয়ে করেন। বিয়ে পড়ান কাজী আবু তাহের। বিয়েতে উকিল বাবা হয়েছিলেন কালিগঞ্জের বাদার্তী গ্রামের আব্দুস সাত্তার। মেয়ের বোনের জামাই সৌদি প্রবাসি ইসমাইল হোসেন বিয়ের প্রধান স্বাক্ষী ছিলেন। শুধু তাই নয়, সুলতান মাহমুদ স্থানীয় আওয়ামীলীগ নেতাকর্মীদের সঙ্গে আতাত করে এলাকায় নিরীহ মানুষের জমি জবরদখল করেছে। যা বিভিন্ন জাতীয় ও স্থানীয় পত্রিকা গুলোতে প্রকাশিত হয়েছে।

 

এছাড়া আরো অভিযোগের শেষ নেই। অভিযোগ রয়েছে, যোগত্যতা সম্পন্ন নেতাকর্মী থাকা সত্তেও উন্মুক্ত এসএসসি ২০২০ সালে পাশ করা একটি সার্টিফিকেট দেখিয়ে সদস্য সচিব হয়ে যায় মাসুদুর রহমান ওরফে ডিস মাসুদ। ডিস মাসুদুর রহমানের বিরুদ্ধে একাধীক চুরি, ডাকাতির অভিযোগ রয়েছে এবং পেশায় একজন ডিস লাইনের বিল কালেক্টর। এছাড়া আরিফ বিল্লাহ আলিফকে এ কমিটিতে যুগ্ন আহবায়ক করা হয়েছে। অথচ আরিফ বিল্লাহ আলিফ ২০১৮ সালে ঢাকা পলিটেকনিক ইন্সটিটিউটের ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক ছিলেন।

 

এ ব্যাপারে সদস্য ঘোষিত উপজেলা ছাত্রদলের আহবায়ক সুলতান মাহমুদ ও সদস্য সচিব মাসুদুর রহমানের যোগাযোগ করা হলে তারা তাদের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ মিথ্যে বলে দাবি করেন।

এ ব্যাপারে জেলা নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাত্রদলের সভাপতি মশিউর রহমান রনি বলেন, কেন্দ্রীয় ভাবে ঘোষনা করা হয়েছে। তাই এ ব্যপারে আমি কথা বলতে রাজি নই। তবে কেন্দ্রীয় ভাবে যাচাই বাচাই করে যাকে ভালো মনে করেছে, তাদেরই কমিটিতে রাখা হয়েছে। যেহেতু কেন্দ্রের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী কমিটি হয়েছে, তাই আমি এর সাথে একাত্ততা পোশন করছি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here