রূপগঞ্জসহ সারাদেশে পিকে হালদারের ৭০৮০ শতাংশ জমি জব্দের আদেশ

0
313

ডেস্ক রিপোর্ট : অবৈধ সম্পদ অর্জন ও অর্থ পাচারের মামলায় পি কে হালদারের তদন্তের অংশ হিসেবে তার ৭ হাজার ৮০ শতাংশ জমিসহ একটি ১০তলা ভবন জব্দে আদালত থেকে আদেশ পেয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

বৃহস্পতিবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) দুদকের এক আবেদনে ঢাকা মহানগর জ্যেষ্ঠ বিশেষ জজ কে এম ইমরুল কায়েশ এই আদেশ দেন বলে কমিশনের উপ-পরিচালক ও মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মো. সালাউদ্দিন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, ‘পি কে হালদারের বিষয়ে তদন্তের স্বার্থে তার অবৈধ সম্পদ জব্দের জন্য আমরা আদালতে তিনটি আবেদন করেছিলাম। বিষয়টি আমলে নিয়ে আদালত ওই সব সম্পত্তি জব্দের আদেশ দিয়েছেন। ’

বৃহস্পতিবার ৫৯৫০ শতাংশ জমি জব্দের আদেশ পেয়েছি। এর আগেও পি কে হালদারের আরও সম্পত্তি জব্দ হয়েছে। সব মিলিয়ে ৭০৮০ শতাংশ বলে জানান তিনি।

সালাউদ্দিন জানান, রাজধানীর উত্তরায় একটি ১০তলা ভবন ছাড়াও গ্রিন রোড, উত্তরা, দিয়াবাড়ি, নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ ও নরসিংদীসহ বিভিন্ন এলাকায় থাকা পি কে হালদারের ওইসব জমি জব্দের আদেশ ইতোমধ্যে হয়েছে।

 

এনআরবি গ্লোবাল ব্যাংকের সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক পি কে হালদারের বিরুদ্ধে অভিযোগ, তিনি নানা কৌশলে নামে-বেনামে অসংখ্য কোম্পানি খুলে শেয়ারবাজার থেকে বিপুল পরিমাণ শেয়ার কেনেন এবং ২০১৪ সালের নির্বাচনের আগে ও পরে নিজের আত্মীয়, বন্ধু ও সাবেক সহকর্মীসহ বিভিন্ন ব্যক্তিকে পর্ষদে বসিয়ে অন্তত চারটি ব্যাংক বহির্ভূত আর্থিক প্রতিষ্ঠানের নিয়ন্ত্রণ নেন।

এছাড়া নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে অর্থ পাচারের ঘটনায় আলোচিত এনআরবি গ্লোবাল ব্যাংকের সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রশান্ত কুমার হালদারের (পিকে হালদার) এর মালিকানাধীন গোডাউনে অভিযান চালিয়েছে দূর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। এসময় গোডাউন থেকে ১’শ টি জমির দলিল উদ্ধার করা হয়েছে বলেও শোনা যাচ্ছে।  বৃহস্পতিবার বিকেল ৩ টার দিকে উপজেলার ভুলতার গাউছিয়া মার্কেটের পেছনে পিকে হালদারের গোডাউনের এ অভিযান পরিচালনা করা হয়।  উদ্ধারকৃত দলিল গুলোতে ঢাকা, নারায়ণগঞ্জ ও নরসিংদীসহসহ দেশে বিভিন্ন স্থানের ৭ হাজার ৮০ শতাংশ ক্রয়কৃত জমির দলিল রয়েছে বলে দুদকের একটি সূত্র জানায়

 

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here