রূপগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের প্রবেশমুখে মরণফাঁদ

0
116

মাহাবুব আলম প্রিয় : নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের প্রবেশমুখে দীর্ঘবছর যাবৎ ঝুঁকিপূর্নভাবে রয়েছে বিদ্যুতের ট্রান্সফরমার খুঁটি। আর ওই খুঁটি থেকে হাসপাতালে দেয়া হয়েছে সংযোগ। বসানো হয়েছে মেইন সুইচ। তবে তা বসানো রয়েছে শিশুদেরও হাতের নাগালে। এতে যে কোন ঘটতে পারে প্রাণহানীসহ বড় ধরনের দূর্ঘটনা। এদিকে এ ফটক দিয়ে প্রতিদিন শতাধিক রোগী ও হাসপাতালের চিকিৎসকরা এমনকি প্রশাসনের লোকজন নিয়মিত যাতায়াত করলেও কারো চোখে পড়েনি এমন ভয়ঙ্কর দৃশ্য।

সরেজমিন ঘুরে দেখা যায়, ৫০ শয্যা বিশিষ্ট এ হাসপাতালের প্রবেশমুখে ফটক ঘেষে রয়েছে পূর্বাচল জোনাল অফিসের অধীনে থাকা হাসপাতালের ব্যবহৃত ট্রান্সফরমার খুঁটি। পাশেই রয়েছে প্রধান লাইনের খোলা তার। বিধি মোতাবেক ম্যান হাইটের (প্রাপ্ত বয়স্ক মানব উচ্চতার) উপরে ট্রান্সফরমার বসানোর নিয়ম থাকলেও এ খুঁটিতে তা মানা হয়নি। যদিও চোখের দেখা মুল বোতল ট্রান্সফরমার কিছুটা উপরে বসানো রয়েছে তথাপিও এর থেকে খোলা ক্যাবলের মাধ্যমে মেইন সুইচে নামানো হয়েছে সংযোগ। এতে ৩ বছরের শিশু থেকে যে কোন বয়সী লোকজন অসাবধানতা কিংবা খেলার ছলে ছুঁতে পারে। আর ছুঁলেই বিদ্যুতায়িত হয়ে যে কোন বিপদের আশঙ্কা রয়েছে এ ট্রান্সফরমার খুঁটিতে।
শুধু ত্ইা নয় খোলামেলা এ ফটক থাকায় দিনে রাতে রোগী ও স্বজনদের শিশুদের আনাগোনা থাকে বেশি। এছাড়াও স্থানীয় বাসিন্দাদের সন্তানরাও হাসপাতাল চত্ত্বরে বিকালে খেলাধুলা করে। এতে সব শ্রেণির লোকজনের চরম অনিরাপদ পরিবেশ থাকলেও কারো নজরে আসেনি এ ঝুঁকিপূর্ণ পরিবেশ। ফলে বিগত ১৪ বছর যাবৎ এভাবেই খুঁটি থেকে এমন খোলামেলা সংযোগ নিচ্ছে হাসপাতালটি।

এদিকে বিষয়টি নজরে এলে এই প্রতিবেদক প্রথমে পূর্বাচল জোনাল অফিসের ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার আব্দুর রহিমকে অবহিত করেন। এ সময় তিনি তাৎক্ষণিক এই প্রতিবেদককে নিয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন । পরবর্তিতে ৭ কর্মদিবসে এ খুঁটি ও ট্রান্সফরমার নিরাপদ করার আশ্বাস দিয়ে বলেন, বিষয়টি এতোদিন কেউ জানায়নি তাই কোন ব্যবস্থা নেয়া হয়নি। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বিষয়টি না জানানোর ফলে এতোদিন এভাবে ছিল। যা দুঃখজনক।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে রূপগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পণা কর্মকর্তা ডাক্তার নুরজাহান আরা খাতুন বলেন, বিষয়টি খেয়াল করিনি। অবশ্যই প্রবেশমুখ নিরাপদ করা জরুরী। এ সময় তিনি আরো বলেন, আমি নতুন যোগদান করেছি। আরো নানা সমস্যা রয়েছে । পর্যায়ক্রমে এসব সমাধান করা হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here